মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৮ এপ্রিল ২০১৯

লালমাই-ময়নামতি প্রকল্পের সুফলভোগীদের মাঝে ২১তম ধাপে উন্নত জাতের মুরগির বাচ্চা বিতরণ


প্রকাশন তারিখ : 2019-04-18

লালমাই-ময়নামতি প্রকল্পের সুফলভোগীদের মাঝে উন্নত জাতের মুরগি পালনের লক্ষ্যে ২১তম ধাপে ২,৯০০টি মুরগির বাচ্চা ১১৬ জন সুফলভোগীর মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার প্রকল্পের সুফলভোগীদের মাঝে ২১তম ধাপে মুরগির বাচ্চা বিতরণ করেন বার্ডের পরিচালক (প্রকল্প) জনাব মোঃ মিজানুর রহমান। এ পর্যন্ত  প্রকল্পের আওতায় সর্বমোট ৩,০৫১ জন সুফলভোগীর মাঝে ৭৬,২৭৫টি সোনালী ও ফাউমি জাতের মুরগির বাচ্চা বিতরণ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমি (বার্ড) কুমিল্লা কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন এ প্রকল্পের আওতায় কুমিল্লা জেলার আদর্শ সদর, বুড়িচং ও সদর দক্ষিণ উপজেলায় চলতি অর্থবছরে ২,০০০ জন সুফলভোগীকে মুরগির বাচ্চা বিতরণ করা হবে। এ প্রকল্পের আওতায় তিনটি উপজেলায় ইতিমধ্যে ২১৬টি গ্রাম উন্নয়ন সংগঠন সৃজন করা হয়েছে এবং ৭,৮১৪ জন সুফলভোগী এ সকল সংগঠনের সদস্যপদ গ্রহণ করেছেন। বিতরণ কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক (পল্লী অর্থনীতি ও ব্যবস্থাপনা) ও লালমাই-ময়নামতি প্রকল্পের প্রকল্প-পরিচালক ড. মোঃ শফিকুল ইসলাম, কম্পোনেন্ট লিডার (প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন) ডা. বিমল চন্দ্র কর্মকারসহ বার্ডের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ। বিতরণ কর্মসূচিতে আরও উপস্থিত ছিলেন বুড়িচং উপজেলার ২নং বাকশিমুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মোঃ আবদুল করিম। 

মুরগির বাচ্চা পালনের জন্য ২১তম ধাপে ২,৯০০টি মুরগির বাচ্চা ১১৬ জন সুফলভোগীকে সোনালী ও ফাউমি জাতের ৪২ দিন বয়সী মুরগির বাচ্চা প্রদান করা হয়। প্রসঙ্গত: লালমাই-ময়নামতি পাহাড়ী এলাকার জনগণের আর্থিক দুরবস্থার কথা বিবেচনা করে বর্তমান সরকারের মাননীয় অর্থমন্ত্রী ও স্থানীয় এমপি আ হ ম মুস্তফা কামালের (লোটাস কামাল) পরামর্শ মোতাবেক বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমি (বার্ড) কর্তৃক ‘সমন্বিত কৃষি কর্মকান্ডের মাধ্যমে কুমিল্লার লালমাই-ময়নামতি পাহাড়ী এলাকার জনগণের জীবন-জীবিকার মানোন্নয়ন’ (আমার বাড়ি আমার খামার প্রকল্পের বার্ড অংশ) শীর্ষক প্রকল্পটি গ্রহণ করা হয়।



Share with :

Facebook Facebook