মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১১ জুলাই ২০১৮

লালমাই-ময়নামতি প্রকল্পের সুফলভোগীদের মাঝে ৮ম ধাপে উন্নত জাতের মুরগির বাচ্চা বিতরণ


প্রকাশন তারিখ : 2018-07-11

লালমাই-ময়নামতি প্রকল্পের সুফলভোগীদের মাঝে উন্নত জাতের মুরগি পালনের লক্ষে ৮ম ধাপে ৩৬৫০ টি মুরগির বাচ্চা ১৪৬ জন সুফলভোগীকে বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার প্রকল্পের সুফলভোগীদের মাঝে ৮ম ধাপে মুরগির বাচ্চা বিতরণ করেন বার্ডের মহাপরিচালক ড. এম. মিজানুর রহমান।

 

বাংলাদেশ পলস্নী উন্নয়ন একাডেমি (বার্ড) কুমিলস্না কর্তৃক বাসত্মবায়নাধীন এ প্রকল্পের আওতায় কুমিলস্না জেলার আদর্শ সদর, বুড়িচং ও সদর দক্ষিণ উপজেলায় চলতি অর্থবছরে ২,০০০ জন সুফলভোগীকে মুরগির বাচ্চা বিতরণ করা হবে। এ প্রকল্পের আওতায় ইতিমধ্যে ১৪৯টি গ্রাম উন্নয়ন সংগঠন সৃজন করা হয়েছে এবং প্রায় ৫,০১৯ জন সুফলভোগী এ সকল সংগঠনের সদস্যপদ গ্রহণ করেছেন। বিতরণ কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন বার্ডের পরিচালক (প্রশাসন) ড. কামরম্নল আহসান,  পরিচালক (প্রকল্প) মোঃ মিজানুর রহমান, লালমাই-ময়নামতি প্রকল্পের প্রকল্প-পরিচালক ড. মোঃ শফিকুল ইসলাম, সহকারী প্রকল্প পরিচালক ও কম্পোনেন্ট লিডার (কৃষি ও সেচ) ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন ভূঁঞা, কম্পোনেন্ট লিডার (প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন) ডা: বিমল চন্দ্র কর্মকার,  কম্পোনেন্ট লিডার (মৎস্য উন্নয়ন) আনাস আল ইসলাম, কম্পোনেন্ট লিডার (মৃত্তিকা উন্নয়ন) বাবু হোসেন এবং কম্পোনেন্ট লিডার (নার্সারী উন্নয়ন) মোঃ সালেহ আহমেদ সহ বার্ডের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ।

 

মুরগির বাচ্চা পালনের জন্য ৮ম ধাপে ৩৬৫০ টি মুরগির বাচ্চা ১৪৬ জন সুফলভোগীকে সোনালী ও ফাউমী জাতের ৪২ দিন বয়সী মুরগির বাচ্চা প্রদান করা হয়। প্রসঙ্গত: লালমাই-ময়নামতি পাহাড়ী এলাকার জনগণের আর্থিক দুরবস্থার কথা বিবেচনা করে বর্তমান সরকারের মাননীয় পরিকল্পনামন্ত্রী ও স্থানীয় এমপি আ হ ম মুসত্মফা কামালের (লোটাস কামাল) পরামর্শ মোতাবেক বাংলাদেশ পলস্নী উন্নয়ন একাডেমি (বার্ড) কর্তৃক ‘সমন্বিত কৃষি কর্মকান্ডের মাধ্যমে কুমিলস্নার লালমাই-ময়নামতি এলাকার জনগণের জীবন-জীবিকার মানোন্নয়ন’  (একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পের বার্ড অংশ) শীর্ষক প্রকল্পটি গ্রহণ করা হয় এবং ২০১৬ সালের ২১ নভেম্বর প্রকল্পটি অনুমোদন লাভের মধ্য দিয়ে কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 


Share with :

Share with :

Facebook Facebook